রাত ১:৩৪ - ৬ই জুলাই, ২০২০ ইং

৫ কারণে ইউরোপ ও আমেরিকাতে করোনার মহামারী

৫ কারণে ইউরোপ ও আমেরিকাতে করোনার মহামারী

এম এ হাসান, জার্মানি থেকেঃ  

ইউরোপে ও আমেরিকাতে দ্রুত করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার কারণ গুলো হলো-

১.সবাই যখন একটি বাসে/ট্রেনে উঠে তখন সবাই একটি কমন চুইচ টাচ করে, তখন বাস/ট্রেনের দরজা খুলে/বন্ধ হয়ে যাই। বাসের/ট্রেনের প্রতিটি যাত্রীকে এই কমন চুইচ টাচ করতে হয়। এবার চিন্তা করুন এই ট্রেনে/বাসে যদি কোন করোনা রোগী বহন করে তাহলে ঐ দিন /সময় থেকে বাসে/ট্রেনে যত যাত্রী উঠবে সবার মধ্য ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়বে।বি:দ্র: ইউরোপে প্রায় দেশে লকডাইনের কথা বলা হলেও কার্যত এখানে বাস-ট্রেন বন্ধ হয় নাই। আপনি গুগল করে দেখতে পারেন।

২.সবাই সুপারমার্কেটে কেনা কাটা করে, তারপর কার্ড পান্স করে বিল পে করে, কিন্তু তার সাথে সাথে তাকে পার্সওয়ার্ড দিতে হয়।পার্সওয়ার্ডের ঐ কি( Key) গুলো সবাই স্পর্শ করে, যদি কোন করোনা অাক্রান্ত রোগী যদি তা স্পর্শ করে তাহলে সবার মধ্য ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়বে।

৩.বেশির ভাগ বাসা গুলোতে প্রবেশমুখে সবাইকে একটি কমন দরজায় সেন্সরে স্পর্শ করতে হয়/চাবি দিয়ে দরজা খুলতে হয়, যা ঐ বিল্ডিংয়ের সবাইকে করতে হয়,কোন করোনা রোগী যদি তা স্পর্শ করে তাহলে ভাইরাসটি সবার মধ্য ছড়িয়ে পড়বে।

এই সব বিবেচনা করলে দেখা যায়, বাংলাদেশে করোনা কম বিস্তার লাভ করবে।এখনি সময় সচেতনতা তৈরী করার। নিজেদের নিয়ন্ত্রণে  রাখতে পারলে করোনার ভয়াবহতা থেকে জাতিকে রক্ষা করা যাবে।

৪.সবার জন্য বাসার নিচে চিঠি গ্রহণের জন্য একটি বক্স থাকে। ডাক পিয়ন এসে ঐ বক্সে চিঠি রেখে যাই। এভাবে তারি সারা দিনে বক্সে বক্সে চিঠি রাখেন। আর তিনি সারা শহরের বাক্সগুলো হাতে স্পর্শ করেন। চিঠি গ্রহীতারাও তা স্পর্শ করেন তাই এই স্পর্শতেই পরষ্পরের মধ্যে ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ে।

৫ .সুপার মার্কেটে পণ্য গুলো সবাই হাতে স্পর্শ করে। ধরুণ কেউ মাংস কিনবে। ফ্রিজে সে মাংসের প্যাকেট গুলো বেচে বেচে পছন্দের টা নিচ্ছে।এভাবে প্রতিটি পণ্য সবাই স্পর্শ করে।এইটাও মাধ্যম হতে পারে।

জার্মানিততে আগে থেকেই মানুষ দূরুত্ব বজায় রেখে চলে। আমদের দেশের মতো নয়। একসাথে ব্যাংকে দুইজন সেবা নিতে গেলে সেবা গ্রহীতাদের মধ্যে কমপক্ষে ৫ ফিড দুরুত্ব বজায় রাখতে হয়, বা কোন অফিসে গেলে কোন রুমে একসাথে সবাই ডুকতে পারবে না। অপেক্ষা করতে হয়। একজনের কাজ শেষ হলে অন্য জন প্রবেশ করতে পারে। এই সব বিবেচনায় আমাদের দেশে এখনই দূরুত্ব বজায় রেখে চললে এই মহামারী থেকে জাতিকে রক্ষা করা যাবে। ও হে মনে রাখতে হবে টাকার মাধ্যমেও করোনা ভাইরাস ছড়াতে পারে তাই খালি হতে যেন কেউ টাকা স্পর্শ না করে।

সচেতন থাকুন, নিজেকে, পরিবারকে ও দেশকে রক্ষা করুন।

শিক্ষার্থী

পিলিপস ইউনির্ভাসিটি

জার্মানি।