সন্ধ্যা ৭:১৬ - ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

এবারের বাজেটে সর্বাধিক গুরুত্ব স্বাস্থ্য ও কৃষিতে

এবারের বাজেটে সর্বাধিক গুরুত্ব স্বাস্থ্য ও কৃষিতে

করোনাভাইরাসের কারণে এবারের বাজেটে স্বাস্থ্য ও কৃষি  খাতকে সর্বাধিক গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে।

প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, স্বাস্থ্য খাতের জন্য বাজেটে আসছে মেগা পরিকল্পনা। এর মধ্যে থাকবে তিন বছরের মধ্যম এবং ১০ বছরের দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা। আর এ দুই মেয়াদে দেশের চিকিৎসা খাতে আনা হবে আমূল পরিবর্তন ও সংস্কার, যাতে করোনাভাইরাস-পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবেলায় সব ধরনের প্রয়োজনীয় উদ্যোগ ও ব্যবস্থা থাকবে।

স্বাস্থ্য খাতে মধ্যমেয়াদি পরিকল্পনার মধ্যে থাকছে জনবল নিয়োগ। এ ছাড়া উন্নত বিশ্ব থেকে বিশেষজ্ঞ প্রশিক্ষক এনে দেশে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে চিকিৎসক, নার্স ও টেকনিশিয়ানদের দক্ষ করে গড়ে তোলা হবে। নতুন হাসপাতাল নির্মাণ করা হবে। প্রতিটি জেলায় গড়ে তোলা হবে গবেষণাগার। কেনা হবে মেডিক্যাল সরঞ্জাম। এ জন্য বাজেটে স্বাস্থ্য খাতে ২৯ হাজার ২৪৬ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হচ্ছে।

কৃষক বাঁচলে দেশ বাঁচবে। তাই কৃষি খাত টিকিয়ে রাখতে আসছে বাজেটে মোট বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ২৯ হাজার ৯৮৩ কোটি টাকা। করোনাভাইরাসের প্রভাবে শিক্ষা খাতও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বাজেটে আগামী বছর শিক্ষা ও প্রযুক্তি খাতে পরিচালনা ও উন্নয়ন উভয় খাতে সরকার ৮৫ হাজার ৭৬০ কোটি টাকা ব্যয়ের পরিকল্পনা নিয়েছে।

করোনার কারণে সবেচেয়ে বেশি ভুগছে গরিব মানুষ। তাই বাড়ছে সামাজিক নিরাপত্তা খাতের আয়তন ও বরাদ্দ। নতুন বাজেটে এ খাতে ব্যয় করা হবে ৩২ হাজার ১১৬ কোটি টাকা। বর্তমানে সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় বয়স্ক, বিধবাসহ মোট সুবিধাভোগীর সংখ্যা ৮১ লাখ। আসছে অর্থবছরে এ সংখ্যা ৯২ লাখ করা হচ্ছে। এ ছাড়া বিভিন্ন ভাতা বাড়ানোর প্রস্তাব থাকছে নতুন বাজেটে।