রাত ৪:২২ - ২৮শে মে, ২০২০ ইং

ইউএনও – ওসিকে এমপি নদভীর গালাগালি ও হুমকি

ইউএনও – ওসিকে এমপি নদভীর গালাগালি ও হুমকি

সাতকানিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) গালাগাল এবং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) ৭ দিনের মধ্যে বদলির হুমকি দিয়েছেন চট্টগ্রাম-১৫ আসনের সংসদ সদস্য আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামউদ্দীন নদভী।

মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে সাতকানিয়া উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে মাসিক আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক সভা ও মাসিক উন্নয়ন সমন্বয় সভায় এ ঘটনা ঘটে।
এ ঘটনার প্রতিবাদ করতে অাসলে উপজেলার চেয়ারম্যান এম এ মোতালেবকে মারতে উদ্যত হন এমপি নদভী।
জানা যায়, সাতকানিয়া উপজেলার মাসিক আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক সভার নির্ধারিত সময় ছিল দুপুর ২টা ৩০ মিনিট। যথাসময়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নুরে আলমের সভাপতিত্বে সভা শুরু হয়।

বিকাল সাড়ে ৪টায় সভার শেষ মূহুর্তে বক্তব্যরত অবস্থায় ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা । এসময়ে লোহাগাড়া-সাতকানিয়া (আংশিক) আসনের সংসদ সদস্য আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামউদ্দীন নদভী সভায় যোগ দেন।

সভাস্থলে এসে মাত্র উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে এমপি নদভী জানতে চান, ‘আপনি আমাকে রিসিভ করতে যাননি কেন?’ এ সময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অশোভন ভাষায় গালাগাল করেন তিনি। পরে উত্তেজিত এমপি নদভী থানার ওসির খোঁজ করেন। ওসিকেও গালাগাল করে তাকে এক সপ্তাহের মধ্যে থানা থেকে বদলি করে দেওয়ার হুমকি দেন।

এ সময় উপজেলা চেয়ারম্যান এম এ মোতালেব এমপি নদভীর অশোভন আচরণের প্রতিবাদ জানালে তাকে মারতে উদ্যত হন নদভী। পরে উত্তেজিত এমপি নদভীকে নিবৃত করেন এমপি নজরুল ইসলাম চৌধুরীসহ অন্যরা।

এসময় বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানরা সভা মুলতবী করার আহ্বান জানান। পরে এমপি নজরুল ইসলাম চৌধুরীর অনুরোধে সভা সম্পন্ন করা হয়।

উপজেলা চেয়ারম্যান এম এ মোতালেব সাংবাদিকদের বলেন, মাসিক আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক সভা চলাকালীন এমপি আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামউদ্দীন নদভী সভায় ঢুকে হঠাৎ ইউএনও’র সঙ্গে অশোভন আচরণ শুরু করেন। একপর্যায়ে ইউএনওকে গালাগাল করেন তিনি। পরে আমার সঙ্গেও অশোভন আচরণ করেন তিনি। থানার ওসিকেও নাজেহাল হওয়ার আগে চলে যেতে বলেন। অন্যথায় এক সপ্তাহের মধ্যে ওসিকে বদলির হুমকি দেন নদভী।



-->